24 June 2018 , Sunday
Bangla Font Download

You Are Here: Home » জাতীয় » ব্যর্থ মন্ত্রীদের সরিয়ে দেয়ার আহ্বান

ডেস্ক রিপোর্ট: অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতসহ সরকারের সব ব্যর্থ মন্ত্রীকে সরিয়ে দিয়ে মানুষের আস্থা ফিরিয়ে আনার আহ্বান জানানো হয়েছে জাতীয় সংসদে।

জাতীয় পার্টির সভাপতিমণ্ডলির সদস্য জিয়াউদ্দিন বাবলু এ আহ্বান জানিয়ে বলেন, প্রধানমন্ত্রীর টিম যদি শক্তিশালী না হয় তাহলে সেটাকে নিয়ে তিনি লক্ষ্যস্থলে পৌঁছতে পারবেন না। এ সময় ব্যাংকের দুর্নীতি খতিয়ে দেখতে এবং দায়ীদের বিচার নিশ্চিত করতে ব্যাংককিং কমিশন গঠনেরও দাবি জানান তিনি।

বুধবার জাতীয় সংসদে পয়েন্ট অব অর্ডারে তিনি এ দাবি জানান। এ সময় সংসদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ উপস্থিত ছিলেন। আর সংসদের সভাপতিত্বে ছিলেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।

জিয়া উদ্দিন বাবলু ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, সম্প্রতি অর্থমন্ত্রী সংসদের বলেছেন সাতটি ব্যাংকে সাড়ে হাজার কোটি টাকা মূলধন ঘাটতি। এ মূলধন গেল কোথায়? কার টাকা এ মূলধন? এ ব্যাংকগুলোতে তো ডিপোজিট টাকা দিয়ে মূলধন হয়। এ টাকা যে আপনি আবার দিচ্ছেন এগুলো করের টাকা দিয়ে দিচ্ছেন। যারা কর দেয় তারা কি সেই ক্ষমতা আপনাকে দিয়েছে? মানুষের টাকা দিয়ে লুটের টাকা ভরণপোষণ করার জন্য আপানকে কে ক্ষমতা দিয়েছে?

তিনি বলেন, মূলধন ঘাটতির সরকারি ব্যাংকগুলো হলো সোনালী, রূপালী, জনতা ও বেসিক ব্যাংক। আর বেসরকারি ব্যাংকগুলো হলো কমার্স, ফারমার্স, ও আইসিবি ব্যাংক। এদের আবার মূলধন দিয়ে লাভ কী? এ টাকা আপনি কোত্থেকে দেবেন। আপনি দেবেন করদাতার টাকা থেকে। এদেশের ১৬ কোটি মানুষ, কৃষক, শ্রমিক, রিকশাওয়ালা করের টাকা থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষের সেই টাকা থেকে দেবেন। ব্যাংকগুলোকে এ করদাতার টাকা দিয়ে ভরণপোষণ করবেন। এর কি সাংবিধানিক কোনো অধিকার আপনাকে দেয়া হয়েছে? আপনি কি মানুষের কাছ থেকে সেই অধিকার পেয়েছেন? এ পর্যন্ত ১৪ হাজার ৫০০ কোটি টাকা ব্যাংকগুলোর ঘাটতি পূরণ করেছেন আপনার মন্ত্রিত্বের মেয়াদে। আর ব্যাংকগুলো দুর্বল হচ্ছে এ অর্থমন্ত্রীর সময়ে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্য করে জাতীয় পার্টির এ নেতা বলেন, আপনি বলেছেন আপনাদের ব্যর্থতার কথা শুনতে চান। তাহলে কেউ যদি ব্যর্থ হয় তাহলে আপনি কেন তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছেন না। ব্যর্থতার দায় নিয়ে কেন উনি এখানে থাকবেন? আমরা বারবার বলছি উনার চলে যাওয়া উচিত। উনি খালি ঘাটতির কথা বলেন, উন্নয়নের রঙিন চিত্র দেখান। মানুষ জানতে চায়- এ ঘাটতির টাকা আমরা কোথা থেকে দেব। এর জবাব আমাদের কাছে নেই। মানুষের করের টাকা দেয়ার অনুমতি কি আমরা পেয়েছি? মানুষ কি আমাদের এজন্য ভোট দিয়েছে যে একজন লুট করবে আর আপনি মানুষের টাকা ভরণপোষণ করবেন। এটা হতে পারে না।

তিনি বলেন, বেসিক ব্যাংকের পরিচালক ও এমডিকে আপনি গ্রেফতার করেছেন। কিন্তু সেই ব্যাংকের চেয়ারম্যান তার বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছেন না। জনতা ব্যাংকের দুর্নীতি নিয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল বারাকাতের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেননি কেন? আমরা ষোল কোটি মানুষের পক্ষে থেকে জানতে চাই কেন তিনি এ মূলধন ঘাটতি সাড়ে নয় হাজার কোটি টাকা দিচ্ছেন? তিনি বারবার ব্যর্থতার কথা সংসদে বলবেন আর টাকা দেবেন এভাবে দেশ চলতে পারে না।

জিয়াউদ্দিন বাবলু বলেন, প্রধানমন্ত্রী আপনার বিরাট একটি ইমেজ আছে। আপনি দেশকে উন্নত সমৃদ্ধশালী দেশের দিকে নিয়ে যাচ্ছেন। আপনি ক্ষুধামুক্ত দারিদ্র্যমুক্ত দেশ প্রতিষ্ঠার জন্য নিরলসভাবে চেষ্টা করছেন। কিন্তু টিম যদি শক্তিশালী না হয় তাহলে সেটাকে নিয়ে লক্ষ্যস্থলে পৌঁছতে পারবেন না। তাই আমি মনে করি আপনার সরকারে স্বার্থে যেসব ব্যর্থ মন্ত্রী আছে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেন। তাদের ডিসমিস করেন। স্যাক করেন। মানুষের আস্থা তৈরি করেন যে- প্রধানমন্ত্রী মানুষের কথা শোনেন, ষোল কোটি মানুষকে মার্যাদা দেন।

এর আগে জাতীয় পার্টির কাজী ফিরোজ রশীদ দেশে সড়ক দুর্ঘটনা নিয়ে সংসদে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। এছাড়াও বক্তব্যদেন বিএনএফের সংসদ সদস্য আবুল কালাম আজাদ।

Use Facebook to Comment on this Post

Leave a Reply

You must be Logged in to post comment.

উপদেষ্টা : মাসুদ রানা, কাজী আকরাম হোসেন, খন্দকার সাঈদ আহমেদ, প্রকাশক : রোকেয়া চৌধুরী বেবী, সম্পাদক : রফিক আহমেদ মুফদি, বিশেষ প্রতিনিধি : মোস্তাক হোসেন, মনিরুল ইসলাম, চিফ রিপোর্টার: হানিফ চৌধুরী, ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : জাকির হোসেন। যোগাযোগ: ২৭৮, পশ্চিম রামপুরা, ঢাকা-১২১৯। বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : রুম নম্বর ১২০৪, মৌচাক টাওয়ার, মালিবাগ মোড়, ঢাকা। মোবাইল : ০১৮১৯-০৬৭৫২৯, ই-মেইল: monirjjd@yahoo.com,

Site Hosted By: WWW.LOCALiT.COM.BD