November 26, 2020, 3:11 pm

শ্বাসকষ্ট নিয়ে আবারও হাসপাতালে অমিত শাহ

শ্বাসকষ্ট নিয়ে আবারও হাসপাতালে অমিত শাহ

আবারও হাসপাতালে ভর্তি হলেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তিনি গতকাল শনিবার রাত ১১টা নাগাদ দিল্লি এইমস হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বলে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে। ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর শ্বাসকষ্ট দেখা দিয়েছে বলে সূত্রের খবর। কোভিড-১৯ পরবর্তী চিকিৎসা শেষে কয়েকদিন আগেই এইমস থেকে বাড়ি ফেরেন অমিত শাহ।

সূত্র উদ্ধৃত করে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে, করোনাকে জয় করে সুস্থ হয়ে উঠলেও শ্বাসকষ্টে ভুগছেন অমিত শাহ; যে কারণে চিকিৎসকদের পরামর্শে শনিবার মধ্যরাতে তড়িঘড়ি হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছে তাঁকে। তবে এ মুহূর্তে তিনি ভালো আছেন। আপাতত চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণে থাকবেন অমিত শাহ। এইমসের একটি সূত্র বলেছে, বর্তমান পরিস্থিতিতে অমিত শাহের পক্ষে হাসপাতালে ভর্তি থাকা সবচেয়ে ভালো। কারণ হাসপাতালে তাঁর শারীরিক অবস্থার ওপর সর্বক্ষণ নজর রাখা সম্ভব হবে। দিল্লি এইমসের কার্ডিও নিউরো টাওয়ারে ভর্তি করা হয়েছে ভারতের মন্ত্রিসভার গুরুত্বপূর্ণ এই সদস্যকে।

এর আগে গত ২ আগস্ট টুইট করে নিজের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার কথা জানিয়েছিলেন অমিত শাহ। যাঁরা তাঁর সংস্পর্শে এসেছিলেন তাঁদের আইসোলেশনে থাকার পাশাপাশি কোভিড-১৯ টেস্ট করানোর আহ্বান জানিয়েছিলেন। এরপর করোনা চিকিৎসায় গুরুগ্রামের মেদান্ত হাসপাতালে ভর্তি হন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে। গত ১৪ আগস্ট অমিত শাহের করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর কিছুদিন হোম আইসোলেশনে থাকবেন বলে জানিয়েছিলেন তিনি।

এরপর, কোভিড-১৯ পরবর্তী শারীরিক কিছু সমস্যার জন্য গত ১৮ আগস্ট গভীর রাতে দ্বিতীয় দফা দিল্লির এইমস হাসপাতালে ভর্তি হন অমিত শাহ। তাঁর রক্তচাপ খুব বেড়ে গিয়েছিল। সেইসঙ্গে ছিল শ্বাসকষ্ট। যার ফলেই তড়িঘড়ি ১৮ আগস্ট রাতেই তাঁকে এইমসে ভর্তি হওয়ার পরামর্শ দিয়েছিলেন চিকিৎসকরা। চিকিৎসা করিয়ে গত ৩১ আগস্ট হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফেরেন তিনি।

হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফেরার পরেও অমিত শাহ শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন বলে জানা গেছে। যে কারণে কোনো ঝুঁকি না নিয়ে গতকাল শনিবার রাতে চিকিৎসকদের পরামর্শে আবার তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি হতে হলো।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © deshnews24
Hosted By LOCAL IT