June 22, 2021, 4:14 am

ওয়ানডে সিরিজও ঘরে তুললো ভারত

ওয়ানডে সিরিজও ঘরে তুললো ভারত

টেস্ট, টি-টোয়েন্টির পর ওয়ানডে সিরিজও ঘরে তুললো ভারত। সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে ইংলিশদের শ্বাসরুদ্ধকর ৭ রানে হারিয়েছে কোহলি বাহিনী।

রোববার পুনেতে ভারতের অধিনায়ক হিসেবে ২০০তম ম্যাচে টস করতে নামেন বিরাট কোহলি। তবে এমন বিশেষ ম্যাচে টস ভাগ্য তার পক্ষে ছিল না। এই নিয়ে চলতি সিরিজে তৃতীয়বার অর্থাৎ সবকটি ম্যাচেই টস হেরেছেন তিনি। তবে তাতে অবশ্য খেলায় তেমন প্রভাব পড়েনি। শেষ পর্যন্ত জয় তুলে নিয়েছে স্বাগতিকরা।

টসে হেরে শুরুতে ব্যাট করতে নেমে ৩২৯ রান সংগ্রহ করে ভারত। জবাবে ৩২২ রানে থামে ইংলিশদের ইনিংস। এই জয়ে ওয়ানডে সিরিজ ২-১ ব্যবধানে জিতলো ভারত। এর আগে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি সিরিজও নিজেদের করে নিয়েছিল দলটি।

বিশাল লক্ষ্য তাড়ায় নেমে ২৮ রানেই দুই ওপেনারকে হারায় ইংল্যান্ড। এর মধ্যে জনি বেয়ারস্টো (১) শিকার হয়েছেন লেগ বিফোরের। আর জেসন রয় (১৪) ফিরেছেন বোল্ড হয়ে। দুজনকেই বিদায় করেন ভারতীয় পেসার ভুবনেশ্বর কুমার।

তিনে নামা বেন স্টোকস ইংলিশদের আশার পালে হাওয়া লাগালেও ইনিংস লম্বা করতে পারেননি। একবার জীবন পেয়েও তার ইনিংস শেষ হয়েছে ৩৫ রানে। অধিনায়ক জস বাটলারের ব্যাট থেকে আসে ১৪ রান। এরপর লিয়াম লিভিংস্টোনকে (৩৬) নিয়ে ৬০ রানের জুটি গড়ে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছিলেন দাভিদ মালান। কিন্তু বোলারের হাতেই ক্যাচ তুলে দিয়ে তিনিও বিদায় নিলে ভাঙে এই প্রতিরোধ। আবারও ব্যর্থ হন মঈন আলীও (২৯)। ২০০ রানে ৭ উইকেট হারিয়ে হারের অপেক্ষায় থাকা ইংলিশদের আশার সলতে হয়ে ছিলেন স্যাম কারেন। মূলত বোলার হলেও ব্যাট হাতে প্রায়ই জ্বলে উঠতে দেখা যায় তাকে। এবারও তেমন কিছুরই ইঙ্গিত দিচ্ছিলেন। কিন্তু ৮৩ বলে ৯৫ রানে অপরাজিত অসাধারণ ইনিংস খেললেও জয় এনে দিতে পারেননি দলকে।

ভারতীয় বোলারদের মধ্যে সর্বোচ্চ চার উইকেট পান শার্দুল ঠাকুর, এছাড়া ভুবনেশ্বর কুমার তিনটি উইকেট তুলে নেন।

এর আগে রোহিত-ধাওয়ান জুটিতে শুরুটা দুর্দান্ত করেছিল ভারত। আরো একবার শতরানের জুটি গড়েন তারা। ধাওয়ান ৬৭ এবং রোহিত ৩৭ রানের ইনিংস খেলেন। ১০৪ রানের এই জুটিতে টিম ইন্ডিয়ার দুই ওপেনার নতুন রেকর্ডের মালিক হয়ে গেছেন। দ্বিতীয় ভারতীয় ওপেনিং জুটি হিসেবে ৫ হাজার রানের গণ্ডি টপকেছেন তারা। এর আগে এই বিরল নজির ছিল সৌরভ গাঙ্গুলী এবং শচীন টেন্ডুলকার জুটির দখলে।

যদিও দুর্দান্ত এই ওপেনিং জুটির পর কোহলি এবং রাহুল দুজনেই এ দিন ব্যর্থ হন। যদিও পন্থ এবং হার্দিক দুর্দান্ত ইনিংস খেলে তাদের ব্যর্থতা অনেকাংশে পূরণ করে দেন। পন্থ ৬২ বলে ৭৮ এবং হার্দিক ৪৪ বলে ৬৪ রান করেন। ক্রুনাল পান্ডিয়া ২৫ এবং শার্দুল ঠাকুর ৩০ রানের উপযোগী ইনিংস খেলেন।

কিন্তু ৫০ ওভার খেলতে পারেনি ভারতীয় দল। মাত্র ৪৮.১ ওভারে ৩২৯ রানে শেষ হয় টিম ইন্ডিয়ার ইনিংস। যা কি-না আগের ম্যাচেই অনায়াসে তুলে ফেলেছিল ইংল্যান্ড। কিন্তু এই ম্যাচে পারেনি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:
ভারত: (৪৮.২ ওভারে) ৩২৯ (শিখর ধাওয়ান ৬৭, ঋষভ পন্থ ৭৮, হার্দিক পান্ডিয়া ৬৪; মার্ক উড ৩৪/৩, আদিল রশিদ ৮১/২)

ইংল্যান্ড: (৫০ ওভারে) ৩২২/৯- (স্যাম কারেন ৯৫, মালান ৫০, লিভিংস্টোন ৩৬, স্টোকস ৩৫; শার্দূল ঠাকুর ৬৭/৪-, ভুবনেশ্বর কুমার ৪২/৩)

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © deshnews24
Hosted By LOCAL IT