January 22, 2021, 2:14 am

ক্যান্সারের কাছে হেরে গেলেন প্লে ব্যাক সম্রাট এন্ড্রু কিশোর

ক্যান্সারের কাছে হেরে গেলেন প্লে ব্যাক সম্রাট এন্ড্রু কিশোর

“হায়রে মানুষ রঙিন ফানুস, দম ফুরাইলে ঠূস” সৈয়দ সামসুল হকের লেখা এই কালজয়ী গানের কণ্ঠ থেমে গেল। কিংবদন্তি শিল্পী, বাংলা সিনেমার প্লে ব্যাক সম্রাট খ্যাত এন্ড্রু কিশোর চলে গেলেন না ফেরার দেশে।

“আমার সারা দেহ খেয়ো গো মাটি, চোখ দুটো তুমি খেয়ো না”,

“ডাক দিয়াছেন দয়াল আমারে, রইব না আর বেশি দিন তোদের মাঝারে”,

“জীবনের গল্প আছে বাকি অল্প”,

” সবাই তো ভালবাসা চায়”,

“আমার বাবার মুখে প্রথম যেদিন শুনেছিলাম গান”সহ ১৫ সহস্রাধিক কালজয়ী গানের প্লে ব্যাক সিংগার এন্ড্রু কিশোর মরণব্যাধি ক্যান্সারের কাছে হার মানলেন। দীর্ঘদিন তিনি ব্ল্যাড ক্যান্সারে ভুগছিলেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁর চিকিৎসার জন্য ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ অর্থসাহায্যের চেক তাঁর কাছে হস্তান্তর করেছিলেন। চিকিৎসার জন্যে তিনি স্বস্ত্রীক সিংগাপুরও গিয়েছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত দয়ালের ডাকেই তাঁকে সাড়া দিতে হলো।
সোনাগলা কন্ঠের এই শিল্পী ৬ জুলাই সন্ধ্যায় তাঁর জন্মস্থান রাজশাহীতে ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ নিজের বোন শিখা বিশ্বাসের হাসপাতালেই শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়ার সাথে সাথে দেশের শিল্প-সংস্কৃতি অংগনে নেমে এসেছে গভীর শোকের ছায়া। মাত্র ৬৪ বছর বয়সে চিরবিদায় নিলেন তিনি। লাশ রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজের হিমঘরে রাখা হয়েছে। মৃত্যুকালে পাশে ছিলেন স্ত্রী লিপিকা কিশোর, বোন শিখা বিশ্বাসসহ অন্যান্য নিকট আত্মীয়-স্বজন। অস্ট্রেলিয়ায় প্রবাসে থাকা ছেলে ও মেয়ে আসার পর রাজশাহিতে তাঁর মা-এর সমাধির পাশেই চিরনিদ্রায় শায়িত হবেন। উত্তরবংগের গুণী শিল্পী ও কৃতিমানুষদের মধ্যে অন্যতম এন্ড্রু কিশোর। যিনি ৮ বার চলচ্চিত্র পুরষ্কার পাওয়ার গৌরব অর্জন করেন। শিল্প-সংস্কৃতি অংগনের অগণিত কার্যক্রমের পেছনের কারিগর হিসেবে থাকা এই গুণী শিল্পী ছিলেন প্রচারবিমুখ।বাংলাদেশের সংগীত জগতের সূর্যপুরুষ এই শিল্পী রাজশাহী রেডিও’তে ১৯৭৭-এ নিয়মিত শিল্পী হিসেবে সংগীত জীবন শুরু করেন। তাঁর প্রথম প্লে ব্যাক “মেইল ট্রেন” সিনেমায় “অচীনপুরের রাজ কুমারী “। ১৯৮২ সালে “রঙের মানুষ” ছবিতে প্লে ব্যাক গান দিয়ে তিনি খ্যাতির শীর্ষে অবস্থান নেন। এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। পাহাড়সম খ্যাতি নিয়েই চিরবিদায় নিলেন। অগণিত ভক্ত-দর্শক-স্রোতার হৃদয় জয় করেছেন তিনি।

উত্তরবংগবাসীর পক্ষে এই কৃতিমান ক্ষণজন্মা মানুষটির আত্মার শান্তির জন্যে দোয়া কামনা করছি। এন্ড্রু দা আপনি পরপারে যেখানেই থাকুন, আপনাকে ভাল রাখুন বিধাতা। যেমন ভাল শিল্পী, ভাল মানুষ হিসেবে আমাদের মাঝে ছিলেন আমৃত্যু। আপনার কালজয়ী সব গান আপনাকে বাঁচিয়ে রাখবে কোটি কোটি মানুষের হৃদয়ে, হাজারো বছর, লাখো বছর। হয়তো আরো কণ্ঠশিল্পী আসবে-যাবে কিন্তু এদেশের মানুষ আর এন্ড্রু কিশোর পাবেন না।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © deshnews24
Hosted By LOCAL IT